পটুয়াখালীতে জমি দখলে নিতে বড় সৎ ভাইকে রক্তাক্ত

প্রকাশিত: ৭:০৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৫, ২০২০

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি, ০৫ নভেম্বর।। পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল সালাম সিকদারকে এক বছর দুই মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (৫নভেম্বর ২০২০) বিজ্ঞ কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারক শোভন শাহরিয়ার’র আদালত এ রায় ঘোষনা করেন।
এর আগে উপজেলার ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত আসনের নারী ইউপি সদস্য মোসা: শাহানারা বেগম ৮এপ্রিল ২০১৯ চেয়ারম্যান আবদুল সালাম সিকদার’র বিরুদ্ধে ৫০ লক্ষ টাকা মানহানির অভিযোগ সহ ন্যায় বিচার চেয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করেন। বাদীর প্রদত্ত জবানবন্দিতে সন্তুষ্ট হয়ে বিজ্ঞ আদালত মামলার অভিযোগের বিষয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্তের আদেশ দেন। এরপর বিচার বিভাগীয় তদন্তে মামলার বর্নিত অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সালাম সিকদার’র বিরুদ্ধে সমন জারী করেন আদালত। পরবর্তীতে আদালতের অনুকম্পায় চেয়ারম্যান জামিন পেলেও তার বিরুদ্ধে দ:বি: ৫০০ ধারায় অভিযোগ গঠন করেন আদালত। মামলায় তিন জন সাংবাদিক নেতা সহ মোট ৫ জন বিজ্ঞ আদালতে সাক্ষ্য প্রদান করেন।
আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো: ফেরদৌস মিয়া বিজ্ঞ আদালতের এ আদেশের সত্যতা স্বীকার করেন। বাদী পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট মো: গোফরান বিশ্বাস পলাশ এবং আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন সিনিয়র অ্যাডভোকেট মি: নাথুরাম ভৌমিক। রায় প্রচারের সময় বিজ্ঞ আদালতে আসামী অনুপস্থিত ছিল।
এদিকে রায় প্রচারের পর বাদী পক্ষ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করলেও আসামী পক্ষ এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে যাবেন বলে জানিয়েছেন আসামী পক্ষের নিযুক্তীয় কৌশুলী।
প্রসংগত, ৩এপ্রিল ২০১৯ রাত ৮টার দিকে ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল সালাম সিকদার পারিবারিক জমিজায়গা নিয়ে বিরোধের জেরে তার পরিষদের নারী ইউপি সদস্য ও চাচাতো বোন মোসা: শাহানারা বেগম’র বিরুদ্ধে কলাপাড়া প্রেসক্লাবের হলরুমে দু:শ্চরিত্র’ নারী বলে লিখিত সংবাদ সম্মেলন করেন। যা পরবর্তীতে একাধিক জাতীয়, আঞ্চলিক পত্রিকা সহ অনলাইন নিউজ পোর্টালে প্রচারিত হয়। যাতে একাধিক নারী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উদ্বেগ প্রকাশ করেন।
###

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ