মানুষের নিরাপত্তা অধিকার রক্ষায় পুলিশ প্রতিজ্ঞাবদ্ধ- বিএমপি কমিশনার শাহাবুদ্দিন খাঁন

প্রকাশিত: ৬:০৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৫, ২০২০

মানুষের নিরাপত্তা অধিকার রক্ষায় পুলিশ প্রতিজ্ঞাবদ্ধ- বিএমপি কমিশনার শাহাবুদ্দিন খাঁন

শামীম আহমেদ ॥

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বলেছেন,আইন শৃংখলা পরিস্থিতি সমুন্ন রাখতে বিট পুলিশিং কার্যক্রম চালু হয়েছে।মানুষের মৌলিক চাহিদা নিশ্চিত করার জন্য একটি উন্নত সমৃদ্ধশালী রাষ্ট্র গড়তে আমরা নিয়োজিত আছি।মানুষের প্রকৃত সুখ ও শান্তি আনয়নের জন্য অন্যতম অধিকার হচ্ছে নিরাপত্তার অধিকার। সে অধিকার রক্ষায় পুলিশ প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের পুলিশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের পুলিশে রুপান্তরিত করতে কাজ করছেন। বঙ্গবন্ধু সব সময় বলতেন পুলিশ ও রাষ্ট্রীয় কর্মচারীরা হবে জনগনের সেবক।

আজ রবিবার(১৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টায় উপ-পুলিশ কমিশনার উত্তর মোঃ খাইরুল আলমের সভাপতিত্বে এয়ারপোর্ট থানা এলাকার আরজি কালিকাপুর ময়দানের হাট ১৫ নং বিট কার্যালয় উদ্ধোধন কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরও বলেছেন,লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশের পুলিশ জনতার পুলিশ হতে কাজ করছে।মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার পুলিশ হবে জনতার।পুলিশকে জনতার পুলিশ হিসেবে রুপান্তরিত করতে পুলিশের জনবল,সরঞ্জাম,রসদ,ট্রেনিং ও সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি করা হয়েছে।আর সে জন্যই সেই উপনিবেশিক মনমানষিকতা থেকে পুলিশ আজ বদলে গেছে।সত্যিকারার্থে জনগনের জনবান্ধব পুলিশ হতে কাজ করছে ।

বিএমপি কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান আরও বলেছেন,শিক্ষার সুষ্ঠ নিরাপদ পরিবেশ রক্ষার জন্য বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মতবিনিময় সভা করছে পুলিশ।আপনাদের প্রত্যাশার সমান করে আমরা নিজেরা বদলে গেছি।দেশের নাগরিক হিসেবে আমাদের কতগুলো দায়িত্ব ও কর্তব্য রয়েছে।সে দায়িত্বের কারনে পুলিশ ও জনগন সমন্বয় করে এলাকার সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে সমাধানের উদ্যোগ নিলে আমরা একটি সুন্দর সুশৃঙ্খল নিরাপদ সমাজ গড়ে তুলতে পারবো।তাই আপনারা আমাদের ভুল ত্র“টি ধরিয়ে দিয়ে পুলিশকে সহযোগিতা করুন।তাহলেই আমরা হয়রানি মুক্ত,দুর্নিতিমুক্ত প্রভাবমুক্ত,নির্ভেজাল পুলিশি সেবা আপনাদের দোড়গোড়ায় পৌঁছে দিতে সক্ষম হবো।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার প্রলয় চিসিম বলেছেন,আমরা চাই আমাদের এ দেশ নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা থাকবে।সবাই যাতে নিরাপত্তার মধ্যে থাকে, কেউ যেন নিরাপত্তাহীনতায় না থাকে সে জন্যই বিট পুলিশিং কার্যক্রম চালু করা হয়েছে।এ বিট পুলিশিংয়ের মাধ্যমে সাধারন জনগনের সাথে সু সম্পর্ক ও দ্রুত সেবা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর দপ্তর) আবু রায়হান মুহাম্মদ সালেহ বলেছেন,
আমাদের মুল উদ্দেশ্য হচ্ছে আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও সুন্দর রাখা।আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার মাধ্যমে আমরা অর্থনৈতিক ভাবে ও প্রযুক্তিগত ভাবে সামনে এগিয়ে যাচ্ছি।

সভাপতির বক্তব্যে উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ খাইরুল আলম বলেছেন,আগে আমরা থানার মাধ্যমে মানুষকে পুলিশি সেবা দিতাম।কিন্তু নানা কারনে মানুষ থানায় আসতে পারেনা তাই থানার সেবাকে বিট পুলিশিংয়ের মাধ্যমে মানুষের দোড়গোড়ায় পৌছে দিতে চাই।এখন আর সেই প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে কাউকে কষ্ট করে আর থানায় আসতে হবেনা।পুলিশ জনগনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে সেবা পৌছে দেবে।

এয়ারপোর্ট থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) শাহ মোঃ ফয়সালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন,অতিরিক্ত উপ- পুলিশ কমিশনার উত্তর মোঃ ফজলুল করিম,বাবুগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী এমদাদুল হক দুলাল,এয়ারপোর্ট থানার সহকারী কমিশনার নাসরিন জাহান,এয়ারপোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম জাহিদ বিন আলম,এয়ারপোর্ট থানা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি রিফাত জাহান তাপসী,চাঁদপাশা ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি মোঃ গোলাম কিবরিয়া,চাঁদপাশা ইউপি চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান সবুজ,বাবুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান মিলন,চাঁদপাশা ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সাধারন সম্পাদক জুয়েল আহমেদ সহ অন্যান্য নের্তৃবৃন্দ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ