বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে বিশেষ সম্পর্ক মানেই ধর্ষণ নয়: দিল্লি হাইকোর্ট

প্রকাশিত: ৬:১৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৮, ২০২০

বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে বিশেষ সম্পর্ক মানেই ধর্ষণ নয়: দিল্লি হাইকোর্ট

নারী যদি দিনের পর দিন কারো সঙ্গে সম্মতিতে শারীরিক সম্পর্কে জড়িত হন, তাহলে সেটা বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণের ঘটনা নয়। দিল্লি হাইকোর্ট সাফ এ কথা জানিয়ে দিয়েছে।

বিয়ের প্রতিশ্রুতি পেয়ে একজন নারী দিনের পর দিন নিজের সম্মতিতেই শারীরিকভাবে মিলিত হওয়ার পর ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন। সেই মামলার শুনানির সময় এ কথা বলেন বিচারক।

আদালত বলছে, কারো সঙ্গে মাসের পর মাস শারীরিক সম্পর্কের বিষয়টিকে কেবল বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে সংগঠিত হয়েছে বলা যায় না।

বিচারক ভিভু বাকরু বলেন, বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে প্রতারণা করার বিষয়টি কোনো নারী তখনই দাবি করতে পারেন, যখন অপরাধ সংগঠিত হয়ে বেশিদিন অতিবাহিত হয়নি। অর্থাৎ, তাৎক্ষণিকভাবে এ ব্যাপারে অভিযোগ করা যেতে পারে, তবে দীর্ঘমেয়াদে শারীরিক সম্পর্ক রাখার পর ধর্ষণ মামলা দেওয়া অবান্তর মনে করেন বাকরু।

তিনি আরো বলেন, কিছু ক্ষেত্রে অবশ্য বিয়ের প্রতিশ্রুতি যৌন সম্পর্ক স্থাপনে সম্মত হওয়ার বিষয়টিকে প্ররোচিত করতে পারে। নারী রাজি না হওয়ার জেরে নির্দিষ্ট মুহুর্তে এ জাতীয় প্ররোচনার মাধ্যমে তার সম্মতি আদায় করে নেওয়া হলে পরক্ষণে তিনি প্রতারিত হওয়ার বিষয়টি অনুধাবন করলে অভিযোগ করতে পারেন।

সে ক্ষেত্রে ওই নারী ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৫ ধারায় মামলা করতে পারবেন। তবে দিনের পর দিন সম্মতিতে শারীরিকভাবে মিলিত হওয়ার পর বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে ধর্ষণের মামলা করাটা অবান্তর বলে মনে করেন বিচারক ভিভু বাকরু।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ