টাইগারদের রাজসিক ফেরা

প্রকাশিত: ৬:১৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২০, ২০২১

টাইগারদের রাজসিক ফেরা

নতুন বছরে নতুন শুরু বাংলাদেশ দলের। করোনায় দীর্ঘ ১০ মাস পর খেলতে নেমে রাজসিকভাবে ক্রিকেটে ফিরল টাইগাররা। ম্যাচ ফিক্সিংয়ের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে সাকিব আল হাসানের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার ম্যাচে দুর্দান্ত জয় পেল স্বাগতিক বাংলাদেশ।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম খেলায় ৬ উইকেটের জয়ের মধ্য দিয়ে ১-০তে এগিয়ে গেল তামিম ইকবালের নেতৃত্বাধীন দল। সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেও হবে মিরপুর শেরেবাংলায়, আগামী শুক্রবার।

তবে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচটি হবে আগামী সোমবার, চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। একই ভেন্যুতে হবে দুই টেস্ট সিরিজের প্রথমটি। সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচ হবে মিরপুরে।

বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে অতিথিদের আগে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

ব্যাটিংয়ে নেমেই ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমানের গতির শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন ক্যাবিরীয় তারকা ওপেনার সুনীল অ্যামব্রিস। ৩.৩ ওভারে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ ১৫/১ রান। খেলার এমন অবস্থায় শুরু হয় বৃষ্টি। বৈরী আবহাওয়ার কারণে ৫৯ মিনিট খেলা বন্ধ থাকে।

এক ঘণ্টা পর ফের খেলা শুরু হলে দলীয় ২৪ রানে ক্যারিবীয় অন্য ওপেনার জেসুস ডি সিলভার উইকেটও তুলে নেন বাংলাদেশের অন্যতম সেরা পেসার মোস্তাফিজ। ২৪ রানে ২ ওপেনারের উইকেট হারিয়ে সাবধানী ব্যাটিং করে সফরকারীরা। রানের চাকা সচল করার আগেই উইন্ডিজ সিরিজে আঘাত হানেন নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দীর্ঘদিন পর খেলতে নামা সাকিব। তার শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন আন্দ্রে ম্যাকার্থি।

এরপর একে একে চারটি উইকেট শিকার করেন সাকিব। সাকিবের ফেরার ম্যাচে অভিষেক হয় তরুণ পেসার হাসান মাহমুদের। উঠতি এই তারকা পেসার শিকার করেন ৩ উইকেট। সাকিব নেন ৭.২ ওভারে মাত্র ৮ রানে ৪ উইকেট। সাকিব আল হাসান স্পিন আর ও হাসান মাহমুদের গতির মুখে পড়ে ৩২.২ ওভারে ১২২ রানে অলআউট হয় ক্যারিবীয়রা।

মামুলি স্কোর তাড়া করতে নেমে সাবধানী শুরু করেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন কুমার দাস। ১৩.২ ওভারে উদ্বোধনী জুটিতে ৪৭ রান করা বাংলাদেশ এরপর ৩৬ রানের ব্যবধানে হারায় প্রথম সারির ৩ উইকেট। ৩৮ বলে ১৪ রান করে আউট ওপেনার লিটন কুমার দাস।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ম্যাচেই লিটন কুমার দাসের উইকেট শিকার করলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্পিনার আকিল হোসেন। তার বলে বিভ্রান্ত হয়ে সাজঘরে ফেরেন বাংলাদেশ দলের তারকা ওপেনার লিটন।

এরপর মাত্র ১০ রানের ব্যবধানে আউট হন নাজমুল হোসেন শান্ত।সাকিব আল হাসানের পছন্দের পজিশন তিন নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৯ বলে ১ রানে ফেরেন শান্ত।

ইনিংসের শুরু থেকে সাবধানী ব্যাটিং করে যাওয়া বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল ফেরেন দলীয় ৮৩ রানে। ডাউন দ্য উইকেটে খেলতে গিয়ে স্টাম্পিং হন দেশসেরা এ ওপেনার। সাজঘরে ফেরার আগে ৬৮ বলে সাত চারের সাহায্যে ৪৪ রান করেন তিনি।

ব্যাটিংয়ে অবনম হওয়া সাকিব ৪৩ বলে খেলে একটি চারের সাহায্যে ১৯ রানে ফেরেন। তার বিদায়ে ২৮ ওভারে ১০৫ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

পঞ্চম উইকেটে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে সঙ্গে নিয়ে অনবদ্য ব্যাটিং করে ৩৫.৫ ওভারে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়ে সাজঘরে ফেরেন মুশফিকুর রহিম। ১৯ ও ৬ রানে অপরাজিত থাকেন মুশফিক ও রিয়াদ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ