বরগুনায় মাইক্রোবাস খাদে পড়ে তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের ২ চীনা কর্মকর্তাসহ নিহত ৩

প্রকাশিত: ৬:৩৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০২১

বরগুনায় মাইক্রোবাস খাদে পড়ে তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের ২ চীনা কর্মকর্তাসহ নিহত ৩

মাইক্রোবাস খাদে পড়ে বরগুনার তালতলী আইসোটেক তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের দুই চীনা কর্মকর্তাসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন তাদের মাইক্রোবাসচালক।

রোববার গভীর রাতে আমতলী-পটুয়াখালী মহাসড়কের ব্রিকফিল্ডসংলগ্ন কেওয়াবুনিয়া নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন— তালতলী আইসোটেক তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের চীনা সাংহাই ইলেকট্রিক পাওয়ার কনস্ট্রাকশন কোম্পানির সেফটি অফিসার লিওয়েন তাও, প্রকৌশলী লুজিকলং, দোভাষী প্রকৌশলী মো. ফখরুল হাসান।

নিহত দোভাষী প্রকৌশলী মো. ফখরুল হাসানের বাড়ি ঢাকার গুলশান। তার বাবার নাম মো. আনিসুর রহমান। তবে অন্যদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

আহত মাইক্রোবাসচালক মো. মুসা মৃধা পটুয়াখালী সদর উপজেলার খলিশাখালী গ্রামের আব্দুস সালাম মৃধার ছেলে।

জানা গেছে, ওই তিন কর্মকর্তা ঢাকা থেকে একটি ভাড়ায়চালিত মাইক্রোবাসে (ঢাকা মেট্রো-হ-১৩-১৫৭৪) তালতলী তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে আমতলী-পটুয়াখালী মহাসড়কের ব্রিকফিল্ডসংলগ্ন কেওয়াবুনিয়া নামক স্থানে মাইক্রোবাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়।

এতে সেফটি অফিসার লিওয়েন তাও, প্রকৌশলী লুজিকলং, দোভাষী প্রকৌশলী মো. ফখরুল হাসান ঘটনাস্থলে নিহত হন।

খবর পেয়ে পুলিশ ওই রাতেই নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। আহত গাড়িচালক মো. মুছা মৃধা করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় তাকে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী মো. সাইদুল ইসলাম বলেন, গাড়ি খাদে পড়ে যাওয়ার শব্দ শুনে দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। কিন্তু গাড়িটি পানির মধ্যে ডুবে থাকায় কিছুই করতে পারিনি। পরে পুলিশ এসে গাড়ির ভেতর থেকে তিনজনের মরদেহ এবং চালককে উদ্ধার করে।

মাইক্রোবাসচালক আহত মো. মুছা মৃধা মোবাইল ফোনে বলেন, সড়কের মোড় ঘুরতে গিয়ে গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে গেছে।

তালতলী আইসোটেক তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের দোভাষী তন্ময় বলেন, তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের চীনা সাংহাই ইলেকট্রিক পাওয়ার কনস্ট্রাকশন কোম্পানির সেফটি অফিসার লিওয়েন তাও, প্রকৌশলী লুজিকলং ও দোভাষী প্রকৌশলী মো. ফখরুল হাসান ঢাকা থেকে মাইক্রোবাসে তালতলীতে আসার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন।

আমতলী থানার এসআই মো. আকবর আলী ভূঁইয়া বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

আমতলী থানার ওসি মো. শাহ আলম হাওলাদার বলেন, খবর পেয়ে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করে থানা আনা হয়। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

বরগুনা পুলিশ সুপার মো. জাহাঙ্গীর মল্লিক বলেন, আইসোটেক তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র কর্তৃপক্ষ ও চায়না দূতাবাস নিহত দুই নাগরিকের মরদেহ দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার সব ব্যবস্থা করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ