প্রকৃত ধর্মনুশীলন মানুষের আত্মার শক্তিকে জাগ্রত করে: ডিসি খাইরুল আলম

প্রকাশিত: ৫:১৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০২০

প্রকৃত ধর্মনুশীলন মানুষের আত্মার শক্তিকে জাগ্রত করে: ডিসি খাইরুল আলম

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার উত্তর মোঃ খাইরুল আলম বলেছেন,প্রকৃত ধর্মানুশীলন মানুষের আত্মার শক্তিকে জাগ্রত করে।মনে প্রশান্তি আনে,মানুষকে মহৎ করে তোলে। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির একটি অনন্য উদাহরন।এখানে সানুষ স্বাধীন ভাবে যে যার ধর্ম নির্বিঘ্নে পালন করতে পারে। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ভূতচতুর্দশী পুণ্য তিথিতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে উপমহাদেশের সর্ববৃহৎ দীপাবলি উৎসব। এ সময়ে যেহেতু এক সাথে একাধিক মানুষের সমাগম ঘটে তাই উৎসব চলাকালীন সময়ে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্য বিধি মেনে দিপালী উৎসব পালন করুন।

শুক্রবার(১৩ নভেম্বর) দুপুরে নগরীর কাউনিয়া মহাশ্মশান পরিদর্শন কালে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন, হিন্দু ধর্মালম্বীদের মধ্যে যাঁরা মৃত্যুবরণ করেছেন তাঁদের আত্মার শান্তি কামনা ও নিজের পূণ্য অর্জনের জন্য প্রার্থনার মধ্য দিয়ে প্রতিবছর দীপাবলি অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। ভারতসহ দেশ-বিদেশ থেকে হাজারো মানুষ এ উৎসবে যোগ দিতে আসেন।তাই তাদের নিরাপত্তা সহ সার্বক্ষনিক সেবা দিতে আমরা প্রস্তুত রয়েছি। কোন অবস্থাতেই স্বাস্থ্যবিধি লংঘন করা যাবেনা।মহাশ্মশানে প্রবেশ এবং বের হওয়ারপথে হ্যান্ড স্যানিটাইজার এর ব্যাবস্থা করতে হবে।কোন রকম পটকা বা আতশবাজি ফোটানো যাবেনা।আইন শৃংখলা বিঘ্নিত হয় এমন কিছু করা যাবেনা।আপনাদের যেকোন সমস্যার বিষয়ে পুলিশকে অবহিত করবেন। আমরা আপনাদের সেবায় নিয়োজিত আছি।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার উত্তর মোঃ ফজলুল করিম,কাউনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আজিমুল করিম,পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) মোঃ লোকমান হোসেন,বরিশাল মহাশ্মশান রক্ষা কমিটির সভাপতি মানিক মুখার্জী কুডু,সাধারন সম্পাদক তমাল মালাকার প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ